৮০ ভাগ ট্যাপের পানিতে ক্ষতিকর ই. কোলি ব্যাক্টেরিয়া!

দেশের পাইপ লাইনে সরবরাহকৃত ট্যাপের ৮০ ভাগ পানিতে ক্ষতিকর জীবাণু ই. কোলি পাওয়া গেছে। এই পানির মান পুকুরের পানির মতো উল্লেখ করেছে বিশ্বব্যাংক। সবমিলিয়ে দেশের ব্যবহারযোগ্য পানির ৪১ শতাংশে ক্ষতিকর এই ব্যাক্টেরিয়ার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। উল্লেখ্য, ডায়রিয়ার জন্য প্রধানত দায়ী এই ই.কোলি ব্যাক্টেরিয়া মলমূত্র এবং পানির মাধ্যমে ছড়ায়। বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) রাজধানীর একটি হোটেলে প্রকাশিত ‘প্রমিজিং প্রগ্রেস: এ ডায়াগনস্টিক অব ওয়াটার সাপ্লাই, স্যানিটেশন, হাইজিন অ্যান্ড পভার্টি ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম। বিশ্বব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কান্ট্রি ডিরেক্টর শিরিন জুমা, স্থানীয়…

পাঁচ দিন ধরে পানি নেই হাসপাতালে

ময়মনসিংহের ভালুকার ‘৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’ পাঁচদিন ধরে পানি নেই। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে হাসপাতালের রোগী, তাদের স্বজন, চিকিত্সক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। হাসপাতালের পানি তোলার পাম্পের কয়েল পুড়ে যাওয়ায় এ দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, অনেক শয্যা ফাঁকা। যারা আছে, তাদের স্বজনরা পানি আনতে জগ, বালতি কিংবা বোতল নিয়ে হাসপাতালের বাইরে যাচ্ছে। অনেকেই হাসপাতাল মসজিদের টিউবওলে থেকে পানি সংগ্রহ করছে। আবার অনেক রোগী ভোগান্তির কারণে হাসপাতাল ছেড়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। হাসপাতালের চিকিৎসক মোস্তাক আহাম্মেদ জানান, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে হাসপাতালের পানির বড়…

শ্রমিকদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তায় গবেষণা ইনস্টিটিউট হচ্ছে

শ্রম খাতে অবকাঠামো উন্নয়নের পাশাপাশি এবার সামাজিক কমপ্লায়েন্সে নজর দেওয়া হচ্ছে। কর্মপরিবেশ উন্নয়নে গবেষণা,পেশাগত স্বাস্থ্য উন্নয়ন ও পেশাগত নিরাপত্তা মান উন্নয়নে নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি), সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনার সঙ্গে মিল রেখে এ বিষয়ে বিশেষ একটি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। জাতীয় পেশাগত স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা বিষয়ক গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (এনওএইচএসআরটিআই) নামের এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য নিরাপদ কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করা এবং উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি। এর মাধ্যমে বড় শিল্প খাত তৈরি পোশাকের পাশাপাশি ছোট-বড় অন্যান্য খাতও একই সুবিধার আওতায় আসবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (একনেক) গত মঙ্গলবারের বৈঠকে এনওএইচএসআরটিআই…

আবারও মনোবিদের শরণাপন্ন টাইগাররা

জয়ের খুব কাছে গিয়েও শেষ মুহূর্তে খেই হারিয়ে ফেলা, চাপের মুখে দলের প্রায় সবারই ভেঙে পড়া বা মাঠের বাইরের লাগামছাড়া জীবনযাপন- বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মানসিক অবস্থা নিয়ে ঘুরেফিরেই প্রশ্ন তুলেছে এসব ঘটনা। মাঠে কিছু ব্যর্থতার সঙ্গে মাঠের বাইরে বেশ কিছু ক্রিকেটারের একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়ে যাওয়ার ঘটনায় ক্রিকেট বোর্ডও নিজেদের শঙ্কার কথা জানিয়েছে। সেইসঙ্গে ক্রিকেটারদের মনস্তাত্ত্বিক দিক নিয়ে কাজ করার জন্য একজন মনোবিদ নিয়োগ দেওয়ার প্রসঙ্গও এসেছে বারবার। অবশেষে ক্রিকেটারদের জন্য পছন্দমতো মনোবিদ খুঁজে পেয়েছে বোর্ড। জিম্বাবুয়ে সিরিজ শুরুর আগেই দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন বাঙালি মনোবিদ আলী আজহার খান।…

চিকিৎসা বীমার আওতায় আসছেন সরকারি চাকরিজীবীরা

নির্বাচনের আগে সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য আরও একটি সুখবর আসছে। উন্নত বিশ্বের মতো সরকারি চাকরিজীবী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য চিকিৎসা বীমা চালু করতে যাচ্ছে সরকার। চিকিৎসা বীমার আওতায় কোনো সরকারি চাকরিজীবী কিংবা পরিবারের সদস্য অসুস্থ হলে তার পুরো চিকিৎসার ব্যয় বহন করা হবে। এজন্য প্রত্যেক সরকারি চাকরিজীবীর বেতন থেকে অল্প পরিমাণ অর্থ (যা এখনও নির্ধারণ হয়নি) কেটে নেয়া হবে। সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এজন্য ব্যবস্থা নিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম বলেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চিকিৎসা বীমার আওতায়…

রোগ নির্ণয় ব্যবস্থা উন্নয়নে জাইকার সঙ্গে চুক্তি

দেশের আট বিভাগীয় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগ নির্ণয় ব্যবস্থা (ডায়াগনস্টিক এবং ইমেজিং সিস্টেম) উন্নয়নে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে সরকার। রোববার সচিবালয়ে প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান ও জাইকার পক্ষে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান জাপানের ওরিয়েন্টাল কনসালটেন্টস গ্লোবাল কোম্পানি লিমিটেডের ঢাকা লিঁয়াজো অফিসের জেনারেল ম্যানেজার রোহিলি ইশি চুক্তিতে সই করেন। এ সময় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক উপস্থিত ছিলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘শিশু ও মাতৃস্বাস্থ্য এবং স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়ন (কম্পোনেন্ট-২: দেশের আটটি বিভাগীয় মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ডায়াগনস্টিক ও ইমেজিং ব্যবস্থার আধুনিকীকরণ)’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় জাইকা ঢাকা, রাজশাহী, ময়মনিসংহ, সিলেট,…

চতুর্থ আন্তর্জাতিক জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন ১৫ নভেম্বর

পাঁচ দিনব্যাপী চতুর্থ আন্তর্জাতিক জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন আগামী ১৫ নভেম্বর শুরু হচ্ছে। ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত সম্মেলন চলবে। ঢাকার সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৭৮টি দেশের স্বাস্থ্যসেবা দানকারী প্রতিষ্ঠ‌ানের ৮০০ প্রতিনিধি, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য আন্দোলনের দেড় হাজার প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করবেন। রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এতে সম্মেলন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন জনগণের স্বাস্থ্য আন্দোলন বাংলাদেশের সভাপতি ও জাতীয় সমন্বয়কারী জাকির হোসেন। তিনি বলেন, ‘সম্মেলনের উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠ‌ানসহ বিশেষ অধিবেশন, প্লেনারি অধিবেশন, উপ-প্লেনারি অধিবেশন, বিষয়ভিত্তিক কৌশলগত আলোচনা, বিভিন্ন…

পরিবেশ দূষণ : বাংলাদেশে এক বছরেই ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষের প্রাণহানি

২০১৫ সালে বাংলাদেশে পরিবেশ দূষণজনিত কারণে ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৮০ হাজার মানুষ মারা গেছে শহর এলাকায়। এ সংখ্যা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মানুষের সংখ্যার দশগুণ। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এ তথ্য জানিয়েছে। শুক্রবার (১২ অক্টোবর) বাংলাদেশ শিশুকল্যাণ পরিষদে এক সংবাদ সম্মেলন এ তথ্য জানানো হয়। বাপার সহ-সভাপতি অধ্যাপক এম ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল মতিন, যুগ্ম সম্পাদক ও শব্দ, বায়ু এবং দৃষ্টিদূষণ কমিটির সদস্য সচিব সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, যুগ্ম সম্পাদক, মিহির বিশ্বাস, শরীফ জামিল, অধ্যাপক আহমেদ কামরুজ্জামান মজুমদার, শাহজাহান…

অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে ডেঙ্গু

এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার সর্বোচ্চ রেকর্ড ছুঁয়েছে দেশ। চলতি বছর অর্থাৎ ২০১৮ সাল শেষ হতে এখনও আড়াই মাসের বেশি বাকি থাকলেও ইতোমধ্যেই সাত সহস্রাধিক নারী, পুরুষ ও শিশুর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার নতুন রেকর্ড হয়েছে। এর আগে ২০০২ সালে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ২৩২ জনের আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড ছিল। তবে ডেঙ্গুজনিত মৃতের সংখ্যায় এখনও ২০০০ সালের ৯৩ জনের মৃত্যুর রেকর্ডই সর্বাধিক। চলতি মৌসুমে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার সর্বোচ্চ রেকর্ডের ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা ঝরা…

বাঁচতে হলে মাদক ছাড়তেই হবে: সিএমপি কমিশনার

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেছেন, সরকার মাদক ব্যবসায়ীদের মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে আইন করছে। সুতরাং বাঁচতে হলে মাদক ছাড়তেই হবে। মঙ্গলবার জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, মাদক ও ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে নগরের পাঁচলাইশ থানা কমিউনিটি পুলিশিং আয়োজিত সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য নগর পুলিশের কমিশনার বলেন, মাদকে যে পুঁজি বিনিয়োগ করছেন, তা অন্য ব্যবসায় খাটান। সম্মানের সাথে মাথা উঁচু করে বাঁচুন। মাদক ব্যবসায় সাময়িক লাভের লোভে নিজের জীবন কেন ঝুঁকিতে ফেলছেন। সৎ ব্যবসায় ফিরে নিজের পুঁজি সংরক্ষণ করুন। পরিবারের সম্মান বাঁচান, সমাজে মাথা উঁচু করে চলুন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ…