বাঁচতে হলে মাদক ছাড়তেই হবে: সিএমপি কমিশনার

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেছেন, সরকার মাদক ব্যবসায়ীদের মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে আইন করছে। সুতরাং বাঁচতে হলে মাদক ছাড়তেই হবে।

মঙ্গলবার জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, মাদক ও ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে নগরের পাঁচলাইশ থানা কমিউনিটি পুলিশিং আয়োজিত সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি।

মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য নগর পুলিশের কমিশনার বলেন, মাদকে যে পুঁজি বিনিয়োগ করছেন, তা অন্য ব্যবসায় খাটান। সম্মানের সাথে মাথা উঁচু করে বাঁচুন। মাদক ব্যবসায় সাময়িক লাভের লোভে নিজের জীবন কেন ঝুঁকিতে ফেলছেন। সৎ ব্যবসায় ফিরে নিজের পুঁজি সংরক্ষণ করুন। পরিবারের সম্মান বাঁচান, সমাজে মাথা উঁচু করে চলুন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। কোনো মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড় দেওয়া হবে না। মাদক ব্যবসায়ীরা অবৈধ অস্ত্রও ব্যবহার করে। তাদের ধরতে গেলে তারা পুলিশের ওপর হামলা করে। পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশতো হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশের অবস্থান ‘জিরো টলারেন্স’।

মাহাবুবর রহমান বলেন, একটি বিশেষ গোষ্ঠী কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মগজ ধোলাইয়ের মিশনে নেমেছে। তাদের সরলতাকে পুঁজি করে মাদক ও জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ত করার অপচেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে অভিভাবকদের সচেতন হতে হবে। সন্তান কোথায় যায়, কার কাছে যায়, কার সাথে চলাফেরা করে- সবকিছুর ওপর নজর রাখতে হবে।

পাঁচলাইশ মডেল থানা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের আহবায়ক শামসুল আলম শামীমের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম, উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় কুমার বসাক, চকবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টু, বাগমনিরাম ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন, শুলকবহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোরশেদ আলম, মহিলা কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা বেগম, কমিউনিটি পুলিশিং চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সদস্য সচিব অহীদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন ও পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহিউদ্দিন মাহমুদ।

Related posts

Leave a Comment